যুবককে অর্ধেক ন্যাড়া করে মারধর, অভিযুক্ত প্রেমিকার পরিবার


যুবককে অর্ধেক ন্যাড়া করে মারধর, অভিযুক্ত প্রেমিকার পরিবার


আক্রান্ত যুবকের নাম অভিজিৎ মাল। বাড়ি সাঁইথিয়া থানার সোলেমানপুর গ্রামে। জানা গেছে, অভিজিৎ পার্শ্ববর্তী কালুরায়পুর গ্রামের ক্লাস টেনের এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে আবদ্ধ ছিল। গত সোমবার বিয়ে করার উদ্দেশে তারা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। সিউড়ি থানার পুরন্দরপুর গ্রামের কাছে আশ্রয় নেয়।
প্রেমিকার পরিবার খবর পেয়ে সেখান থেকে তাদের উদ্ধার করে গ্রামে নিয়ে আসে। অভিজিৎকে অর্ধেক ন্যাড়া করা হয়। মেরে হাত ভেঙে দেওয়া হয় বলে দাবি অভিজিতের। ব্লেড দিয়ে চিরে দেওয়া হয় হাত পা। আহত অবস্থায় তাকে বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই যুবক ইলামবাজারের এক বেসরকারি কলেজে কারিগরি শিক্ষা নিয়ে পড়াশোনা করে।

অভিজিৎ জানায়, “খুব ছোটো থেকে গৃহশিক্ষকের কাছে পড়তে গিয়ে আমাদের আলাপ হয়। মাস দেড়েক আগে আমাদের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিয়ের উদ্দেশে গত সোমবার তাকে নিয়ে পুরন্দরপুরে আশ্রয় নিয়েছিলাম। কিন্তু মেয়ের বাবা সেখান থেকে আমাদের দুজনকে গাড়িতে গ্রামে তুলে নিয়ে আসে। এরপর বাঁশ দিয়ে প্রচণ্ড মারধর করে। মাথার অর্ধেক চুল কেটে দেয়। হাত পা ব্লেড দিয়ে চিরে দেয়। আমার কাকা গিয়ে আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।”

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*