যৌন দৃশ্যে নিজেদের সংযম হারিয়েছিলেন যেসব তারকারা – #ejiban


১. রণবীর কাপুর ও ইভেলিন শর্মা

ইয়ে জাওয়ানি হে দিওয়ানি ছবির শুট্যিং এর সময় একটি ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে ইভেলিন শর্মার প্রতি আকৃষ্ট হয়ে যান রণবীর কাপুর।ডিরেক্টর কাট বলার পরেও তিনি থামেন নি।

২. চেতনা ও রুশললান মুমতাজ

আই ডোন্ট লাভ ইউ এই ছবিতে একাধিক ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের সিন ছিলো।জানা গেছে এই সিনেমার একটি চুম্বনের দৃশ্যে অভিনেতা রুশলান নাকি এতটাই নিজের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছিলেন যে তার সহ অভিনেত্রী চেতনার বোতাম খুলে ফেলেছিলেন।

৩. সিদ্ধার্থ মালহোত্রা ও জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ

বর্তমানে প্রায় সব বলিউড ছবিতেই কিছু না কিছু চুম্বনের দৃশ্য দেখাই যায়।এমনই এক ঘটনা ঘটেছিলো সম্প্রতি মুক্তি পাওয়া ছবি আ জেন্টলম্যানের একটি চুম্বন দৃশ্যের শ্যুটে।জানা গিয়েছে এই ছবির একটি চুম্বন দৃশ্যে ডাইরেক্টর কাট বলার পরেও একে অপরকে চুম্বন করে গেছেন সিদ্ধার্থ ও জ্যাকলিন।

৪. দিলীপ তাহিল ও জয়া প্রদা

একটি ছবির শ্যুটিং এ নিজের সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেরেছিলেন দিলীপ তাহিল।শ্যুটিং জয়া প্রদাকে কাছে পেয়ে হিংস্র পশু হয়ে পড়েন দিলীপ।তবে থাপ্পড় খেয়ে অবশেষে নিয়ন্ত্রণে ফেরেন দিলীপ।

৫. মাধুরী দিক্ষীত ও রণজীৎ

প্রেম প্রতিজ্ঞা সিনেমার একটি ধর্ষণের দৃশ্যে নিজের সমস্ত লিমিট ক্রশ করেন ভিলেন রণজীৎ।জানা যায় এই ঘটনার পর বেশ কিছুদিন ডিপ্রেশনে ছিলেন মাধুরী।

৬. প্রেমনাথ ও ফরিয়াল

গোল্ড সিনেমার একটি দৃশ্য চলাকালীন নায়িকা ফরিয়ালকে জাপটে ধরেন ভিলেন প্রেমনাথ।সেটে উপস্থিত কাউকে তোয়াক্কা না করেই।অবশেষে অনেক কষ্টে প্রেমনাথের থেকে নিজেকে মুক্ত করেন ফরিয়াল।

৭. বিনোদ খান্না ও ডিম্পেল কাপাডিয়া

প্রেম ধর্ম সিনেমার শ্যুটিং চলাকালীন নিজের ক্যারিয়ারের শীর্ষে ছিলেন বিনোদ খান্না।একাধিক ছবির শ্যুটিং এর জন্য ডবোল শিফট করে কাজ করতেন।সেই ছবির নাইট শিফটে শ্যুটিং চলাকালীন একটি দৃশ্যে অভিনেত্রী ডিম্পেল কাপাডিয়াকে বাজে ভাবে চুমু খেতে থাকেন বিনোদ।পরিচালক মহেশ ভাট কাট বলার পরেও তিনি তার চুম্বন জারি রেখেছিলেন।

৮. বিনোদ খান্না ও মাধুরী দিক্ষীত

দয়াবান সিনেমায় নিজের বয়সের থেকে অনেক ছোটো মাধুরীর সাথে অভিনয় করতে গিয়ে নিজের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেছিলেন বিনোদ।এতটাই যে সেই ছবির একটি চুম্বন দৃশ্যে মাধুরীর ঠোঁটে কামড় দিয়ে বসেন।

Comments

comments

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*