লিভার সাফ রাখে কিশমিশের জল, জেনে নিন কীভাবে বানাবেন


লিভারে গন্ডগোল? ব্লাড প্রেসার? পেটের সমস্যা? ওষুধে তেমন কাজ হচ্ছে না? নিয়মিত কিশমিশ খান। রক্তাল্পতায় কিশমিশ যে উপকারী, তা অনেকেই জানেন। কারণ কিশমিশ শরীরে নতুন রক্ত তৈরি করে। সেইসঙ্গে রোজ কিশমিশের জল খেলে একদম সাফ থাকবে লিভারও।

গবেষণায় দেখা গিয়েছে, কিশমিশের জল খেলে লিভারে জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়া শুরু হয়। শরীরে রক্ত দ্রুত পরিশোধন হতে থাকে। টানা ৪ দিন কিশমিশের জল খেলে পেট একদম পরিষ্কার হয়ে যায়। পেটের গণ্ডগোল উধাও হয়ে যায়। সঙ্গে পাওয়া যায় ভরপুর এনার্জি। সেইসঙ্গে কিশমিশে রয়েছে নানা রকম ভিটামিন ও মিনারেল। কিশমিশ না খেয়ে কিশমিশের জল খেলেও সেই ভিটামিন ও মিনারেল শরীরে ঢোকে। জলে ভেজানোর বাড়তি উপকারিতা হল শর্করার মাত্রা কমে।

কীভাবে তৈরি করবেন কিশমিশের জল?
২ কাপ জলে ৪০০ গ্রাম কিশমিশ রাতভর ভিজিয়ে রাখুন। সকালে কিশমিশ ছেঁকে নিয়ে জল হালকা গরম করে খান। জল পানের পর আধঘণ্টা অন্য কিছু খাবেন না। তবে একটা কথা মাথায় রাখা দরকার। ডায়াবেটিস রোগীদের কিন্তু কিশমিশ খাওয়ার আগে ডাক্তারদের পরামর্শ নিতে হবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*