২০১৭ এর মিস ওয়ার্ল্ড হলেন ভারতের মানুষী চিল্লার…জানুন কিভাবে হলেন। 


এশিয়ার মধ্যে ভারতই প্রথম মিস ওয়ার্ল্ডের খেতাব ছিনিয়ে নিয়েছিল। সেটা ১৯৬৬ সাল। সে বার ডাক্তারির ছাত্রী রীতা ফারিয়া ভারত তো বটেই, এশিয়ার ইতিহাসে প্রথম মিস ওয়ার্ল্ড হয়েছিলেন। ঘটনাচক্রে তার ঠিক অর্ধ শতাব্দী পর সেই একই খেতাব জয় করলেন আর এক ডাক্তারি ছাত্রী। তিনি মানুষী চিল্লার।

রীতার পর দীর্ঘ কয়েক দশক ভারত থেকে কেউ ওই খেতাব জেতেননি। শেষে খরা কাটে ১৯৯৪তে। সে বার বিশ্বসুন্দরীর খেতাব পেয়েছিলেন ঐশ্বর্যা রাই। তার পর ১৯৯৭তে ডায়না হেডেন, ’৯৯তে যুক্তামুখী এবং ২০০০ সালে প্রিয়ঙ্কা চোপড়া মিস ওয়ার্ল্ডের শিরোপা পেয়েছেন। তার পর আবারও দেড় দশকের অপেক্ষা। অবশেষে মানুষীর হাত ধরেই সেরা সুন্দরীর শিরোপা পেল ভারত।

মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭ হয়েছেন ভারতের মানুষী চিল্লার। এ নিয়ে ষষ্ঠবার কোনো ভারতীয় তরুণী বিশ্বসুন্দরীর শিরোপা পেলেন। সেইসঙ্গে বিশ্বসুন্দরীর তকমা পাওয়া দেশের তালিকায় ভেনিজুয়েলার সঙ্গে যৌথভাবে প্রথমস্থানে উঠে এলো ভারত।

 ২১ বছর বয়সী মানুষী হরিয়ানার মেয়ে। পড়ছেন এ রাজ্যেরই ভগত ফুল সিং সরকারি নারী মেডিকেল কলেজে। তিনি বলেন, ‘মা হলেন সবচেয়ে বড় আমার জীবনের সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা। মায়েদেরই সবচেয়ে বেশি শ্রদ্ধা জানানো উচিত।’ 

গত শনিবার (১৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় চীনের সমুদ্র সৈকতের শহর সানইয়ায় জাঁকজমকপূর্ণ গ্র্যান্ড ফিনালেতে তার মাথায় ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ মুকুট পরিয়ে দেওয়া হয় এই ২০ বছরের তরুণী মানুষীর মাথায়। গতবারের বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতার বিজয়িনী মিস পুয়ের্তোরিকো স্টেফানি দেল ভ্যালে।


বেইজিং রাইজের ডিজাইনে অনুষ্ঠিত জমকালো সন্ধ্যায় শেষ ৪০ জন থেকে বাদ ২৫ জন বাদ পড়ে লড়াই হয় ১৫ জনের। এই ১৫ জন থেকে পারফরম্যান্সে বাদ পড়েন আরও পাঁচজন। শেষ ১০ জনের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি প্রতিযোগিতার পর বাদ পড়ে যান আরও পাঁচজন। বাকি পাঁচজনের মধ্যে শেষ হাসিটা হাসেন মানুষীই। তার প্রথম রানারআপ হন ‘মিস ইংল্যান্ড’ স্টেফানি হিল এবং দ্বিতীয় রানারআপ হন ‘মিস মেক্সিকো’ আন্দ্রে মেজা।

২০০০ সালে সবশেষ এই মিস ওয়ার্ল্ড খেতাব জিতেছিলেন বলিউডের হার্টথ্রব ‘দেশি গার্ল’ প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। দীর্ঘ ১৭ বছর পর এই মুকুট ফিরে এলো ১৩২ কোটি মানুষের ভারতে। 

জয়ের পর নয়া বিশ্বসুন্দরী বলেন, ‘‘সেই ছোটবেলা থেকে ভাবতাম এমন একটা প্রতিযোগিতায় সেরার শিরোপা ছিনিয়ে নেব। কিন্তু কী ভাবে তা জানা ছিল না। স্বপ্নটা আজ বাস্তবের চেহারা পেল। আমি ভীষণই খুশি।’’

 

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*